ঢাকামঙ্গলবার , ১১ মে ২০২১
  • অন্যান্য

কুড়িগ্রামে রকমেলন চাষে শিক্ষার্থী ফারুকের সাফল্য

admin
মে ১১, ২০২১ ৩:৪৯ পূর্বাহ্ন । ১২৯ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি





কুড়িগ্রামের উলিপুরে রকমেলন চাষে শিক্ষার্থী ফারুকের সাফল্য এসেছে। শিক্ষার্থীর ফারুক আহমেদের বাড়ি কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার ধামশ্রেনী ইউনিয়নের ভদ্রপাড়া গ্রামে। সম্পূর্ণ অর্গানিক ও আধুনিক মালচিং পেপার পদ্ধতিতে উন্নতজাতের বিদেশি সাম্মাম ও রকমেলন চাষ করে সবার নজন কেড়েছেন। প্রথমবারের মত ফলটি এ অঞ্চলে চাষ হওয়ায় প্রতিদিন বিভিন্ন জায়গার মানুষ তার ক্ষেতে দেখতে আসছেন।

জানা যায়, উপরের ত্বক পাথর (রক) এর মতো হওয়ায় অস্ট্রেলিয়াতে রকমেলন নামে পরিচিত। আরব দেশগুলোতে একে সাম্মাম বলে। উর্দুতে খরবুজ বা খরবুজা, আমেরিকাতে ক্যান্টালোপ, এশিয়াতে মেলন নামে পরিচিত। সুইট-মেলন বা মিষ্টি বাংগিও বলেন অনেকে। পুষ্টিগুণে রকমেলন অনন্য। বিভিন্ন এন্টি-অক্সিডেন্ট সম্পন্ন এই ফলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন এ এবং সি, যা উচ্চ রক্তচাপ, এজমা কমিয়ে দেয়।

ফারুক আহমেদ বলেন, আমাদের কুড়িগ্রাম জেলা কৃষিতে অনেক পিছনে। এই এলাকার মানুষ এখনো ধান চাষে পড়ে আছে। ধান চাষের পাশাপাশি আধুনিক পদ্ধতিতে কম খরচে উচ্চ ফলনশীল বিদেশী রকমেলন ও সাম্মাম চাষ করলে বেশি লাভবান হওয়া সম্ভব। এ এলাকার বেকার,শিক্ষিত যুবকরা যদি চাকরির আশায় না থেকে আধুনিক পদ্ধতিতে কৃষি কাজ শুরু করে, তাহলে এক দিকে যেমন বেকারের সংখ্যা কমে যাবে, অন্যদিকে দেশ তথা আমাদের কুড়িগ্রাম অঞ্চল কৃষিতে এগিয়ে যাবে।

উপজেলা কৃষি অফিসার সাইফুল ইসলাম জানান, আমাদের দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এই ফল চাষ করে অল্প সময়ের মধ্যে অনেকে স্বাবলম্বী হচ্ছেন। বর্তমানে অনেক শিক্ষিত বেকার যুবক উদ্যোক্তা হিসেবে উচ্চমূল্যের ফসল চাষে আগ্রহি হয়ে উঠেছে। ফারুক আহমেদের মত এ অঞ্চলের বেকার যুবকরা উচ্চমূল্যের ফলন চাষে এগিয়ে আসলে আমরা তাদেরকে সার্বিক সহযোগিতা করবো।







Credit: Source link