ঢাকাশনিবার , ৭ অগাস্ট ২০২১
  • অন্যান্য

খাতুনগঞ্জে পচছে পেঁয়াজ-রসুন-আদা, লোকসানে ব্যবসায়ীরা

admin
অগাস্ট ৭, ২০২১ ৫:৫১ পূর্বাহ্ন । ৪৬ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি





খাতুনগঞ্জে পচে যাচ্ছে ঈদের আগে মজুদকৃত পেঁয়াজ, রসুন ও আদা। এতে করে কেনা দামের অর্ধেক দাম দিয়েও বিক্রি করতে পারছেন না ব্যবসায়ীরা। যারফলে লোকসান গুনছেন তারা।

জানা যায়, অতিরিক্ত লাভের আশায় ঈদের আগে বিপুল পরিমাণ আদা, রসুন ও পেঁয়াজ মজুদ করে ব্যবসায়ীরা। কিন্তু ঈদ পরবর্তী লকডাউনে তেমন বিক্রি হয়নি পেঁয়াজ। এছাড়াও অতিবর্ষণে পেঁয়াজ ভিজে নষ্ট হতে শুরু করেছে। এতে করে দুই থেকে আড়াই হাজার বস্তা আদা, রসুন ও পেঁয়াজ পচে গেছে।

এদিকে খাতুনগঞ্জের আড়তে চীনের রসুন কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ৮২ টাকা; যা কোরবানির ঈদের আগে ছিল ১৭০ টাকা। মিয়ানমারের আদা এখন বিক্রি হচ্ছে কেজিপ্রতি ৪০ টাকা, অথচ ২৫ দিন আগে একই আদা বিক্রি হয়েছে ৬৪ টাকা। আর পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৮-৩২ টাকা, যা কোরবানির সময় বিক্রি হয়েছে ৪৬ টাকা।

খাতুনগঞ্জের পাইকারি ক্রেতা বশির আহমদ বলেন, লাভের আশায় অতিরিক্ত পণ্য মজুদ করেছিল কিন্তু প্রত্যাশা অনুযায়ী দাম পাইনি। আড়তে আদা, রসুন ও পেঁয়াজে পচন শুরু হওয়ায় তারা অর্ধেক দামেও পণ্যগুলো বিক্রি করতে পারছেন না বলেও তিনি জানান।

খাতুনগঞ্জের আমদানিকারক গোলাম রসুল বলেন, পাইকারি পর্যায়ে পণ্যগুলো বিক্রি না হওয়ায় ব্যাংকের এলসির টাকা এখনো পরিশোধ করা যায়নি। তিনি বলেন, তার আড়তে মজুদ থাকা পেঁয়াজের বস্তায় অধিকাংশই চারা গজাচ্ছে। পচতে শুরু করেছে আদা ও রসুন।







Credit: Source link