গাইবান্ধায় মরিচ চাষে স্বপ্ন বুনছেন চরাঞ্চলের চাষিরা

0
6
গাইবান্ধায় মরিচ চাষে স্বপ্ন বুনছেন চরাঞ্চলের চাষিরা




ফাইল ছবি


প্রতিবছরের ন্যায় এবারও মরিচ চাষে স্বপ্ন বুনছেন যমুনা নদীবেষ্টিত গাইবান্ধা জেলার ফুলছড়ি উপজেলার চরাঞ্চলের প্রান্তিক চাষিরা। চলতি বছর মরিচ উৎপাদন করে অনেকেই নিজেদের ভাগ্য ফেরানোর আশা করছেন বলে জানিয়েছেন একাধিক চাষি।

চরাঞ্চলের চাষিরা জানিয়েছেন, যমুনা নদীর পানি নেমে যাওয়া মাত্রই জেগে ওঠা জমিতে মরিচ চাষের প্রস্তুতির কাজ শুরু করে দেন তারা। উর্বর এ জমিতে হালকা ভাবে চাষ দেওয়া হয়। এরপর মরিচের বীজ রোপণ করা হয়। পরবর্তীতে ধারাবাহিক ভাবে নিড়ানি, সামান্য সেচ ও সার দিতে হয় মরিচের ক্ষেতে। মূলত পরিচর্যাটা করাই আসল কাজ। মোটামুটি তিন মাস অতিবাহিত হওয়ার পর থেকেই ক্ষেত থেকে মরিচ উঠানো শুরু করা হয়।

কৃষক হাফিজ জানান, অন্যান্যা বছরের তুলনায় আবহাওয়া রয়েছে অনুকুলে। যার কারণে মরিচের বাম্পার ফলন হব। বিঘাপ্রতি গড়ে প্রায় ২৫ মণ কাঁচা মরিচ ঘরে তুলবেন বলেও তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করেন।

কৃষক এনামুল হক জানান, এবার ১৪ শতক জমিতে বাগুরা জাতের মরিচ আবাদ করেছেন। ফলনও হয়েছে অনেক ভালো। সার-কীটনাশকসহ অন্যান্য খরব বাদে দ্বিগুণ লাভ থাকবে তার। বর্তমানে বাজারে আড়াই হাজার টাকা মণ দরে বিক্রি করা হচ্ছে। তবে ভারতের মরিচ না ঢুকলে আরও বেশী দাম পাওয়া যেতো বলেও তিনি জানান।

এদিকে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তারা  জানান, মরিচ চাষিদের লাভবান করতে মাঠপর্যায়ে কাজ করা হচ্ছে। কৃষকদের প্রণোদনা দেয়াসহ নানাভাবে সহযোগিতা করা হচ্ছে।







Credit: Source link

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে