গাইবান্ধায় মাছ চাষে সফল মিলন

0
42
মাছ





গাইবান্ধায় মাছ চাষে সফল মিলন মিয়া। তিনি গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের বাসিন্দা। মাছ চাষ করে তিনি এলাকায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। পরিশ্রমের মাধ্যমে তিনি নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন একজন আদর্শ মৎস্য চাষি হিসেবে।

মাছ চাষি মিলন মিয়া বলেন, ২০১১ সালে শুকনো মৌসুমে করতোয়া নদীর জেগে ওঠা তীরের গর্তে অল্প পানিতে দুই লিটার মাছের ডিম-রেণু ফুটিয়ে পোনা মাছ বিক্রি শুরু করি। সেই সময়ে আমি ৫০ হাজার টাকা মুনাফা পাই। পরে ২০১৩ সালে ২০ হাজার টাকা বাৎসরিক ভাড়ায় ২৫ শতক একটি পুকুর লীজ নেই। সেখানে ছয় হাজার টাকায় দুই লিটার কই ও শিং মাছের রেণু ফেলি। সাত মাসে মাছের খাদ্য ও ওষুধসহ খরচ হয় ৩ লাখ টাকা, আর তা বিক্রি করি ৭ লাখ টাকার। এরপর থেকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

বর্তমানে ৪ টি পুকুরে মাছ চাষ করছি। সেখানে তেলাপিয়া ৬ হাজার, পাবদা ৩৩ হাজার এবং ৮ হাজার পিস গোলসা (টেংরা) ছাড়া হয়েছে। প্রতিপিস তেলাপিয়া ১ টাকা ৬০ পয়সা, পাবদা প্রতি পিস ১ টাকা এবং গোলসা প্রতিপিস ১ টাকা পঞ্চাশ পয়সা দরে পোনা মাছ সংগ্রহ করা হয়েছে। এই মাছ গুলো বাজারজাত পর্যন্ত খাবার, ঔষধ ও সেচ খরচ হবে আনুমানিক সাড়ে ৩ লাখ টাকা। এবং ৭-১০ লাখ টাকায় বিক্রি হবে বলে প্রত্যাশা করছেন মাছ চাষি মিলন মিয়া।

উপজেলার মৎস্য কর্মকর্তা প্রদীপ কুমার জানান, মিলন মিয়া উপজেলার একজন আদর্শ মৎস্য চাষী। তার প্রজেক্ট পরিদর্শনসহ সম্ভব্য প্রয়োজনীয় সব ধরণের সহযোগিতা করা  হচ্ছে।


আরও পড়ুনঃ রাজধানীতে বেড়েছে ইলিশের সরবরাহ, কমেছে দাম


মৎস্য প্রতিবেদন / আধুনিক কৃষি খামার







Credit: Source link

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে