ঢাকাশনিবার , ২১ অগাস্ট ২০২১
  • অন্যান্য

ঠাকুরগাঁওয়ে চাষ হচ্ছে মরুভূমির ত্বীন ফল

admin
অগাস্ট ২১, ২০২১ ৭:৫৯ পূর্বাহ্ন । ৫২ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি





ঠাকুরগাঁওয়ে চাষ হচ্ছে মরুভূমির ত্বীন ফল। ঠাকুরগাঁওয়ে প্রথমবারের মতো ব্যক্তি উদ্যোগে চাষ শুরু হয়েছে ত্বীন ফলের। পবিত্র কোরআনে বর্ণিত এ ফলটি ঔষধি গুণসম্পন্ন এবং স্বাদে মিষ্টি। সেলিমা আক্তার নামে এক নারী উদ্যোক্তা সদর উপজেলার মুন্সিরহাট এলাকায় ত্বীন ফল চাষ করে সফল হয়েছেন।

বাগান দেখতে আসা শাহিন আলম নামের ব্যবসায়ী বলেন, আরব দেশের মরুভূমির ফল এখন নিজ এলাকায় চাষ করা হচ্ছে। তাই ফলটি দেখার আগ্রহ নিয়ে ছুটে এসেছি। এই ফলটির কথা পবিত্র কোরআনের আছে সুরা ত্বীন-এ। এই মূল্যবান ফলটি বাগানে এসে দেখতে পেয়ে আমাদের অনেক ভালো লাগল।

বাগানের কর্মরত শ্রমিক শফিকুল জানান, ত্বীন গাছটিতে কোনো রকম রাসায়নিক সার দেয়া হয়নি। জৈব ও কম্পোজড সার মিশিয়ে গোড়ায় দিয়েছি। নিয়মিত আগাছা পরিষ্কাও পরিচর্যার মাধ্যমে গাছগুলো বড় হয়ে উঠেছে। এ সময়ে তেমন কোনো রোগবালাই দেখা যায়নি। রোপণ করা গাছগুলোর মাটি বেলে ও দো-আঁশ মাটির সংমিশ্রণ হলেও এই আবহাওয়ার সঙ্গে এখন মানিয়ে নিয়েছে ত্বীন।

সেলিমা আক্তার বলেন, শখের বসে এই পবিত্র ফলের চারা রোপণ করা হয়েছিল। প্রথম বছরে আশানুরূপ ফলন হয়েছে। এখন বাণিজ্যিকভাবে চারা উৎপাদন ও মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে কাজ করা হচ্ছে। তবে ত্বীন গাছটির বীজ থেকে চারা উৎপাদনের হার কম হওয়ায় নির্ভরতা করতে হচ্ছে কাটিং বা কলম চারায়। দেশে ছাড়াও বিদেশে এ ফলের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। সম্ভবনাময় এই ফলটি বাণিজ্যিকভাবে চাষ করা গেলে দেশে বেকারত্ব হার কমে আসবে।

জেলার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আবু হোসেন জানান, কোনো রকম রাসায়নিক কীটনাশক ও সার ছাড়াই এ ফলটি চাষ করা সম্ভব। ডুমুর ফলটি সবজি হিসেবে খাওয়া যায়। এর পাতা গো খাদ্য হিসেবে ব্যবহার করলে দুধ দেয়া গাভি থেকে অনেক বেশি দুধ পাওয়া যাবে। এ ছাড়াও এর পাতা পুকুরে গুঁড়ো করে ছিটিয়ে দিলে পানি বিশুদ্ধ থাকে। ত্বীন বা ডুমুর ফলের বাগানটিতে মাঠ পর্যায়ে কৃষি উপ-সহকারীরা নিয়মিত পরিদর্শন করে বিভিন্ন ধরনের পরামর্শ দিচ্ছেন।


আরও পড়ুনঃ ঝিনাইদহে ড্রাগন চাষে মুসার অভাবনীয় সাফল্য


কৃষি প্রতিবেদন / আধুনিক কৃষি খামার







Credit: Source link