ঢাকাবুধবার , ৩ নভেম্বর ২০২১
  • অন্যান্য

দেশি মুরগির কৃমির ঔষধ সমূহ

admin
নভেম্বর ৩, ২০২১ ৬:৪২ পূর্বাহ্ন । ৭৮ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি

দেশি মুরগির কৃমির ঔষধ সম্পর্কে খামারিদের আরো সচেতন করা প্রয়োজন। কেননা পারিবারিক দেশীয় মুরগির ছোট ছোট খামারগুলোতে কৃমির ঔষধ একেবাড়েই ব্যবহার করা হয় না। অথচ দেশি মুরগিকে ৬ মাস অন্তর অন্তর কৃমির ঔষধ খাওয়াতে হয়। দেশি মুরগির জন্য আলাদা কোন ঔষধ নেই। সকল মুরগির জন্য একই ধরনের ঔষধ ব্যবহার করতে হয়। মুরগির বয়স ও ওজন অনুযায়ী ডোজ কম বেশি হতে পারে।

দেশি মুরগির কৃমির ঔষধ সম্পর্কে আলোচনার আগে দেশি মুরগির কৃমি সম্পর্কে কিছু ধারনা দেওয়া দরকার। দেশি মুরগিতেও গোল কৃমি ও ফিতা কৃমি পাওয়া যায়। রাউন্ড ওয়ার্ম বা গোল কৃমি তুলনামুলক বেশি ক্ষতিকর। কৃমির সংক্রমন বেশি হলে ক্ষতিও বেশি হয়।

কৃমির ক্ষতিকর প্রভাব
দেশি মুরগির বাচ্চা অধীক কৃমি বা পরজীবী দ্বারা আক্রান্ত হয়ে মারা যেতে পারে।
মুরগির ওজন কমে যায়।

এন্টারটাইটিস বা ন্যাক্রোটিক এন্টারটাইটিস রোগ তৈরী হয়।
এনিমিয়া বা রক্ত স্বল্পতা দেখা দেয়।
উৎপাদন কমে যায়।

দেশি মুরগির কৃমির ঔষধ
মুরগির কৃমিনাশক ঔষধের অনেকগুলো গ্রুপ রয়েছে। যেমন- পাইপারজিন সাইট্রেট, লিভামিজল হাইড্রোক্লোরাইড, এলবেন্ডাজল, ফেনবেন্ডাজল ও আইভারমেকটিন গ্রুপের ঔষধ অন্যতম। মুরগির অন্ত পরজীবী বা গোল কৃমি ও ফিতা কৃমির জন্য পাইপারজিন সাইট্রেট গ্রুপের ঔষধ ব্যবহার করা উত্তম। আর বহি:পরজীবীর জন্য আইভারমেকটিন গ্রুপের ঔষধ ব্যবহার করা উত্তম।

পাইপারজিন গ্রুপের পাউডার
এটি মুরগির জন্য একটি শক্তিশালী ও কার্যকারী কৃমির ঔষধ। পানিতে দ্রবণীয় এই দেশি মুরগির কৃমির ঔষধ খাবার পানির সাথে মিশিয়ে খাওয়াতে হয়। ডোজ- প্রতি কেজি ওজনের জন্য ২৫০ মিলিগ্রাম হিসাবে মোট মুরগির ওজন অনুযায়ী পাইপারজিন সাইট্রেট পাউডার মেপে পানির সাথে মিশিয়ে খাওয়াতে হবে। পাইপারজিন গ্রুপের ঔষধ-

পাইপারভেট পাউডার (স্কয়ার)
এস্কারেক্স পাউডার (এ সি আই)
আইভারমেক্টিন
আইভারমেক্টিন এমন একটি কৃমিনাশক ঔষুধ যা অন্ত: পরজীবী ও বহি: পরজীবী সকল কৃমির উপর কার্যকর। আইভারমেক্টিন ঔষধ-

এসিমেক ১% (এ সি আই)

ফার্মসএন্ডফার্মার/ ০৩ নভেম্বর ২০২১

Credit: Source link