পোলট্রি খামারে খাদ্য ব্যবস্থাপনায় যা করতে হবে

0
7
মুরগি





পোলট্রি খামারে খাদ্য ব্যবস্থাপনায় যা করতে হবে সেগুলো আমাদের দেশের বেশিরভাগ খামারিরাই জানেন না। লাভজনক হওয়ার কারণে বর্তমানে অনেকেই মুরগি পালন করছেন। তবে খামারে খাদ্য ব্যবস্থাপনায় কিছু বিষয়ের প্রতি খেয়াল রাখতে হয়। তা না হলে খাদ্য গ্রহণের ফলে মুরগির স্বাস্থ্যের উন্নতি না হয়ে মুরগি আরও অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাই মুরগির খাদ্য ব্যবস্থাপনায় বিশেষ কিছু কাজ করতে হবে। চলুন তাহলে আজকে জেনে নেই মুরগির খাদ্য ব্যবস্থাপনায় যা করা জরুরী সেই সম্পর্কে-

পোলট্রি খামারে খাদ্য ব্যবস্থাপনায় যা করতে হবেঃ


১। পোলট্রি খামারে খাদ্য প্রদানের স্থানের আশেপাশে যাতে কোন খাদ্য বা পানি পড়ে না থাকে সেদিকে সজাগ দৃষ্টি দিতে হবে। খামারে খাদ্য পড়ে গেলে খাদ্য অপচয় হওয়ার পাশাপাশি খামারে রোগ-জীবাণুর আক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

২। পোলট্রি খামারে মুরগিগুলোকে খাদ্য প্রদানের সময় খাদ্যের পাত্র যাতে কোনভাবেই ময়লাযুক্ত না হয় সেদিকে বিশেষ নজর দিতে হবে। প্রতিবার খাদ্য প্রদানের পূর্বে খাদ্যের পাত্র জীবাণুমুক্ত আছে কিনা তা ভালোভাবে পরীক্ষা করে দেখতে হবে।

৩। খাদ্য প্রদানের পাত্রে যদি কোন কারণে ময়লা থেকে থাকে তাহলে সেখান থেকে বিভিন্ন রোগ হতে পারে। তাই বার বার খাদ্য প্রদানের পূর্বে জীবাণুমুক্ত করে তারপর খাদ্য দিতে হবে।

৪। পোলট্রি খামারে প্রদান করা খাদ্য যাতে মুরগির ভিটামিন ও মিনারেলের অভাব পূরণ করে সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি দিতে হবে। তা না হলে মুরগি ভিটামিন ও পুষ্টির অভাবে পড়বে।

৫। পোলট্রি খামারে যেসব পানি সরবরাহ করা হবে সেগুলো যাতে সম্পূর্ণ বিশুদ্ধ হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে হবে। খামারের পানি বিশুদ্ধ না হলে মুরগি বিভিন্ন রোগের দ্বারা আক্রান্ত হতে পারে ও খামারি লোকসানে পড়তে পারে।

৫। দৈনিক নির্দিষ্ট পরিমাণে খাদ্য মুরগিগুলোকে প্রদান করতে হবে। খামারের মুরগিগুলোর যাতে খাদ্য চাহিদা পূরণ হবে তা নিশ্চিত করতে হবে।


আরও পড়ুনঃ মুরগির খামারে স্বাবলম্বী মিজান, মাসে আয় দেড়


পোল্ট্রি প্রতিবেদন / আধুনিক কৃষি খামার







Credit: Source link

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে