ঢাকাবৃহস্পতিবার , ৩ জুন ২০২১
  • অন্যান্য

বাকৃবিতে জলবায়ু পরিবর্তন সহিষ্ণু জাত ও উৎপাদনশীলতার প্রভাব শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

admin
জুন ৩, ২০২১ ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন । ৩৬ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি





কৃষিবিদ দীন মোহাম্মদ দীনু, বাকৃবিঃ বাংলাদেশের পরিবেশগতভাবে ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চলগুলিতে জলবায়ু পরিবর্তন সহিষ্ণু জাত সমূহের গ্রহণের মাত্রা এবং মাঠ পর্যায়ে এর উৎপাদনশীলতার প্রভাব শীর্ষক গবেষণা প্রকল্পের ভার্চুয়াল কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ ৩ জুন ২০২১, বাউরেস পরিচালক প্রফেসর ড. মোঃ আবু হাদী নূর আলী খান সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত উক্ত কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে অনশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. লুৎফুল হাসান। এছাড়াও প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড. জীবন কৃষ্ণ বিশ্বাস, নির্বাহী পরিচালক (কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশন)।

কর্মশালায় মূখ্য আলোচক হিসেবে যুক্ত হয়েছিলেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এমেরিটাস প্রফেসর ড. এম.এ সাত্তার মন্ডল।অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন কৃষি অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. হুমায়ুন কবীর। প্রকল্পটির মূল বিষয় উপস্থাপন করেছেন প্রধান গবেষক প্রফেসর ড. হাসনীন জাহান, কৃষি অর্থনীতি বিভাগ এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন উক্ত প্রকল্পের সহগবেষক ড. নাহিদ সাত্তার, কৃষি অর্থনীতি বিভাগ। এছাড়া সার্বিক সহায়তায় ছিলেন একই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক প্রকল্পের আরেক সহগবেষক ড. মাহবুব হোসেন।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বারি ও বিনার মহাপরিচালকবৃন্দ এবং ব্রি’র পরিচালক ও কৃষি গবেষণা প্রতিষ্ঠানসমূহের বিভিন্ন স্তরের গবেষক বৃন্দ। কৃষি অর্থনীতি ও গ্রামীণ সমাজবিজ্ঞান অনুষদ ছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এগ্রোনমি, জেনেটিক্স এবং প্ল্যান্ট ব্রিডিং,কৃষি সম্প্রসারণ ও শিক্ষা বিভাগসমূহের সম্মানিত শিক্ষকবৃন্দ।

প্রকল্পটির মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে পরিবেশগতভাবে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকাতে ধান এবং গম এর জলবায়ু পরিবর্তন সহিষ্ণু জাতসমূহের গ্রহণের মাত্রা কি কি নিয়ামক দ্বারা প্রভাবিত হয় তা বোঝার চেষ্টা করা, এই প্রক্রিয়ার সমস্যা সম্পর্কে জানা এবং মাঠ পর্যায়ে উৎপাদনশীলতার উপরে এর প্রভাব নিরুপন করা। প্রকল্পটির অর্থায়ন করছে কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশন। এই গবেষণার ফলাফল জলবায়ু পরিবর্তন সহিষ্ণু ধান ও গমের উৎপান বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখবে।







Credit: Source link