ঢাকাশুক্রবার , ২ জুলাই ২০২১
  • অন্যান্য

বাকৃবি’র খাদ্য প্রকৌশলী প্রমা সেন এর অভাবনীয় সাফল্য

admin
জুলাই ২, ২০২১ ৬:১৪ অপরাহ্ন । ৫৪ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি


কৃষিবিদ দীন মোহাম্মাদ দীনু, বাকৃবিঃ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুড টেকনোলজি এবং গ্রামীণ শিল্প বিভাগে মাস্টার্স ইন ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং এ অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী প্রমা সেন পেলো নগর খাদ্য ব্যবস্থায় সৃজনশীল উদ্ভাবনী পুরস্কার,। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহনকারী দলগুলির মধ্যে তার দল “জ্যাকফ্রুট ৩৬০ ডিগ্রী” এর জন্য এটি একটি অসামান্য অর্জন।

প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকারকারী “জ্যাকফ্রুট ৩৬০ ডিগ্রী” দলটির আরেকজন সদস্য হচ্ছেন তামান্না মাসতুরা যিনি একই বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি ব্যবসা ও বিপণন বিভাগের মাস্টার্স থিসিস সেমিস্টারে অধ্যয়নরত একজন ছাত্রী এবং দলটির দলনেতা প্রমা সেন ইতোমধ্যে উক্ত বিভাগের অধ্যাপক ডঃ মোহাম্মদ গোলজারুল আজিজ এর সাথে মাস্টার্সে অনুরূপ বিষয়ে গবেষণা করছেন।

এছাড়াও প্রমা সেন তার এ অর্জনের জন্য কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন ফুড টেকনোলজি ও গ্রামীন শিল্প বিভাগ এর প্রধান, সহযোগী অধ্যাপক ডঃ পলি কর্মকার, অন্যান্য শিক্ষক মন্ডলী এবং ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং ক্লাব, বাকৃবি এর বর্তমান সাধারণ সম্পাদক কাজী নাজমুস সালেহীন রাফিসহ বন্ধুদের যারা বিভিন্ন সময়ে তাকে সাহায্য ও সহযোগিতা করেছে।

“জ্যাকফ্রুট ৩৬০ ডিগ্রী” দলটি মূলত বাংলাদেশের জাতীয় ফল কাঁঠালের সম্পুর্ণ সদ্ব্যবহার করে বিভিন্ন পুষ্টিকর খাবার এবং কাঁঠালের উপজাত থেকে পশুখাদ্য তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন পরিবেশ বান্ধব পণ্য উৎপাদনের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।

সুইজারল্যান্ডভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংস্থা গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ইমপ্রুভড নিউট্রিশন (গেইন) এবং ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম (ডব্লিউওএফপি) এর যৌথ উদ্যোগে গঠিত প্ল্যাটফর্ম স্কেলিং আপ নিউট্রিশন-সান (এসইউএন) বিজনেস নেটওয়ার্ক (এসবিএন)-বাংলাদেশ ” ফুড ফ্রন্টিয়ার্সঃ আরবান ফুড সিস্টেম ইনোভেশন চ্যালেঞ্জ প্রতিযোগিতা” শিরোনামে একটা ভার্চুয়াল প্রতিযোগিতার আয়োজন করে যা ১৩ মে,২০২১ থেকে শুরু হয় এবং গত বুধবার ৩০ জুন,২০২১ রাতে ভার্চুয়ালি এই প্রতিযোগিতা শেষ হয়।

খাদ্য প্রকৌশলী প্রমা সেন জানান, এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয় মূলত নগর এলাকার মানুষের নিরাপদ, পুষ্টিকর ও স্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণে উৎসাহ প্রদানের ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে। যেখানে তরুণ ও সম্ভাবনাময় মোট ৮৫ জন উদ্যোক্তা অংশগ্রহণ করেন। পরবর্তীতে শীর্ষ ১২ জন অংশগ্রহণকারীদের মধ্য থেকে ছয়জন উদ্যোক্তাকে বিচারকরা চূড়ান্তভাবে বিজয়ী ঘোষণা করেন। যার মধ্যে “জ্যাকফ্রুট ৩৬০ ডিগ্রী” ক্যাশ প্রাইজ আওয়ার্ড সেকশনে প্রথম স্থান অধিকার করে। তার প্রতিষ্ঠানকে নগদ সহায়তা হিসেবে ২৫০০ ডলার অনুদান পুরস্কার সরূপ প্রদান করা হবে। সে আরও জানায়,

নিরাপদ খাবার ও অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব, বাস্তবায়নে প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন এবং সৃজনশীল বিপনন প্রক্রিয়া – এই তিনটি মৌলিক ধারণার উপর ভিত্তি করে বাংলাদেশের নগর এলাকার টেকসই খাদ্য ব্যবস্থা বাস্তবায়নে উদ্যোক্তাদের আধুনিক উদ্ভাবন চিহ্নিতকরে উদ্যোক্তাদের সক্ষমতা বৃদ্ধি এবং ব্যবসায়ের দক্ষতা বিকাশ করাই ছিলো এই প্রতিযোগিতার অন্যতম উদ্দেশ্য।

প্রতিযোগিতার সমাপনী দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (পিপিসি) ড. রুহুল আমিন তালুকদার। এছাড়াও শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (প্ল্যানিং) মো. গোলাম ইয়াহিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল কাইয়ুম‚ জনস্বাস্থ্য ও পুষ্টি ইনস্টিটিউটের (আইপিএইচএন) আওতাধীন ন্যাশনাল নিউট্রিশন সার্ভিসের লাইন ডিরেক্টর ড. এস এম মুস্তাফিজুর রহমান, গেইন বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ডা. রুদাবা খন্দকার, ডেনমার্ক দূতাবাসের বাণিজ্যিক কাউন্সিলর আলী মুশতাক বাট, রিসার্স অ্যান্ড কমপিউটিং সার্ভিসেস এর প্রধান নির্বাহী ড. নাদিয়া বিনতে আমির ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

উল্লেখ্য এই ক্যাম্পেইনে কৌশলগত অংশীদার হিসেবে কাজ করছে ন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন অব স্মল অ্যান্ড কটেজ ইন্ডাস্ট্রিজ অব বাংলাদেশ (এনএএসসিআইবি) এবং বাংলাদেশ ইওথ এনভায়রনমেন্টাল ইনিশিয়েটিভ (বিওয়াইইআই)।
উল্লেখ্য প্রতিবেদনটি তৈরিতে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করেছেন ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং ক্লাব, বাকৃবি এর বর্তমান সাধারণ সম্পাদক কাজী নাজমুস সালেহীন রাফি।।

Credit: Source link