Home অন্যান্য লাইভ বাগেরহাটে সৌদি খেজুর চাষে জাকির হোসেনের সাফল্য

বাগেরহাটে সৌদি খেজুর চাষে জাকির হোসেনের সাফল্য

0
বাগেরহাটে সৌদি খেজুর চাষে জাকির হোসেনের সাফল্য





বাগেরহাটে সৌদি খেজুর চাষে জাকির হোসেনের সাফল্য এসেছে। তিনি বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার সন্ন্যাসী হাজীপাড়া এলাকায় সৌদি খেজুর চাষ করে এই সফলতা পেয়েছেন। ১৫ একর মৎস্য ঘেরের খামারের বেড়িব-বাঁধে এখন আড়াই হাজারের মত গাছ রয়েছে জাকিরের। দুই বছরেই ফল এসেছে অনেক গাছে। ইতিমধ্যে আগস্ট মাসে প্রথম একটি গাছ থেকে ফল কেটেছেন তিনি।

খেজুর চাষি জাকির হোসেন বলেন, পুকুরের পাড় জুড়ে বিভিন্ন ফলজ গাছও রোপণ করি। কিন্তু লবণ পানির জন্য এসব ফসলে লাভ হচ্ছিলো না। অন্যদিকে অতিরিক্ত লবন পানির কারণে ঘেরে গলদা চিংড়ি বা কার্প জাতীয় মাছ ভালো হয় না। তারপরে কয়েক বছরে বাগদা চিংড়িতেও লোকসানে পড়ি। পরে হতাশা কাটিয়ে উঠতে ২০১৯ সালের ফেব্রুয়াির মাসে রামপাল সৌদি খেজুর বাগান নাম দিয়ে এ খেজুর চাষ শুরু করি।

ময়মনসিংহের ভালুকা থেকে ২০০ সৌদি খেজুরের চারা এনে রোপণ করি। পরে নরসিংদী থেকে আরও ১০০ চারা নিয়ে আসি। বর্তমানে আমার আজোয়, মরিয়ম, সুকারি, আম্বার ও বারহি এ পাঁচ জাতের আড়াই হাজারের মত খেজুর চারা রয়েছে। এছাড়াও বিচির তৈরি আরও ২৫০০ চারা প্রস্তুত রয়েছে নার্সারিতে। বর্তমানে ৫০ টি গাছে ফলন হলেও আগামী এক বছরের মধ্যে বাগানের অন্তত ২০০ থেকে ৩০০ গাছে খেজুর হওয়া শুরু করবে বলে প্রত্যাশা করেন তিনি।

স্থানীয় কৃষক আল আমিন জানান, আইনজীবী জাকির ভাইর ঘেরে ঘুরতে গিয়ে সৌদি খেজুেরর চাষ দেখে আমার ঘেরেও কয়েকটি চারা রোপণ করেছি। চারা গুলো বড় হয়েছে। যদি ভালো ফলন পাই ভবিষ্যতে আরো চারা রোপণ করবো বলে জানান তিনি।

জেলার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শফিকুল ইসলাম বলেন, জাকির হোসেন সৌদি খেজুর চাষে সফলতা পাওয়ায় অনেকেই আগ্রহী হবেন এই খেজুর চাষে। যদি সব কিছু ঠিক থাকে তবে লবনাক্ত পানির এলাকার জন্য একটি নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন হবে। সৌদি খেজুর চাষে আমরা কৃষকদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও কারিগরি সহায়তা প্রদান করবো।


আরও পড়ুনঃ নরসিংদীতে একই জমিতে একাধিক ফসল চাষ


কৃষি প্রতিবেদন / আধুনিক কৃষি খামার







Credit: Source link

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here