মনোসেক্স তেলাপিয়া চেনার সহজ উপায়





মনোসেক্স তেলাপিয়া চেনার সহজ উপায় মৎস্য চাষিদের জেনে রাখা দরকার। আমাদের দেশে পুকুরে ব্যাপকহারে মাছের চাষ করা হচ্ছে। চাষ হওয়া এসব মাছের মধ্যে তেলাপিয়া মাছ অন্যতম। তবে অনেকেই মনোসেক্স তেলাপিয়ার চাষ করে থাকেন। আজকে আমরা জানবো মনোসেক্স তেলাপিয়া চেনার সহজ উপায় সম্পর্কে-

মনোসেক্স তেলাপিয়া চেনার সহজ উপায়ঃ


মৎস্য বিজ্ঞানীরা পর্যবেক্ষণে দেখেছেন যে, একই খাবারে একই সময়ে স্ত্রী তেলাপিয়ার চাইতে পুরুষ তেলাপিয়া বেশী বাড়ে এই চিন্তাকে পুঁজি করেই হরমোন খাইয়ে তেলাপিয়াকে বাহ্যিকভাবে পুরুষে রুপান্তরিত করা হয়; যেহেতু তেলাপিয়াকে  একই লিঙ্গবিশিষ্ট  (পুরুষ) রুপান্তরিত করা হয় সেই জন্যই ইংরাজীতে “Mono sex Telapia” বলা হয়।

হ্যাচারী থেকে যখন এই তেলাপিয়া নেয়া হয় তখন একই সাইজের প্রায় নেয়া হয় বলে প্রতিযোগিতা সমান থাকে জন্যেই এদের দৈহিক বৃদ্ধি সমান থাকে।



কিন্তু পুকুরেরই পোনা গুলির মধ্যে সাইজে ছোট-বড় দেখা যায়। বিষয়টা একটু শেয়ার করতে চাই- আমার টিটেনাসের ভ্যাক্সিন নেয়া আছে।

আপনি কি আমাকে দেখে বলতে পারবেন? নিশ্চয়ই না। এটা ঠিক যে, আমি হয়ত ‘টিটেনাসে’ সহজে আক্রান্ত হব না; আর সব যা তাই!

হরমোন খাইয়ে স্ত্রী মাছ গুলির সাময়িকভাবে পুরুষালী স্বভাবের করা যায় চেহারায় কোন মতে চেনা যাবে না। তবে কেউ যদি হাত বাছাইয়ের মাধ্যমে পুরুষ গুলিকে আলাদা করতে চান করতে পারেন। তবে দৈহিক আকৃতিতে স্ত্রী মাছগুলি খুব ছোট হয়; আমার তা মনে হয় না।



এটাও সত্য যে, স্ত্রী মাছ গুলির “ঘাড়”টা একটু মোটাই হয় সে জন্যে ওজনের খুব একটা তারতম্য আমার কাছে মনে হয় না। তবে স্ত্রী তেলাপিয়া প্রায় ৩ মাসের মাথায়ই ডিম পাড়া শুরু করে যেটা বেশীর ভাগ সময়েই সমস্যার সৃষ্টি করে। দেখা যায় বাচ্চা দিয়ে পুকুর একেবারেই ভর্তি করে ফেলে এবং পুকুরের প্রাকৃতিক খাবার গুলি খেয়ে একে বারে শেষ করে ফেলে। এমতাবস্থায় পুলিশ মাছ হিসাবে “চিতল” এবং “ফলি” ছাড়া যেতে পারে। তা ছাড়াও পুকুর থেকে অতিরিক্ত তেলাপিয়া জাল টেনে ধরে কমিয়ে দিয়েও চাষ করা যায়।

লেখাঃ কাজী আবেদ লতিফ

Credit: Source link

Related Articles

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

Stay Connected

0ভক্তমত
2,880অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
0গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব
- Advertisement -

Latest Articles