ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২২ এপ্রিল ২০২১
  • অন্যান্য

মোটা চালের কেজি ৫২ টাকা, দিশেহারা নিম্ন আয়ের মানুষেরা |

admin
এপ্রিল ২২, ২০২১ ৭:৩০ পূর্বাহ্ন । ১৫২ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি





মোটা চাল সাধারণত নিম্ন আয়ের মানুষ কিংবা গরীবরা কিনে থাকেন। যাদের আয় একটু বেশি তারা অন্যান্য চিকন ও মানসম্মত চাল কিনে। কিন্তু বর্তমান আর সে পরিস্থিতি নেই। মোটা চাল এখন সব আয়ের মানুষদের চালে পরিণত হয়েছে। দোকানগুলোতে মোটা চালের খোঁজ করছেন নিম্ন আয়ের মানুষ ছাড়াও বেশি আয় করা মানুষরা। কেননা মোটা চালের দাম বাড়তে বাড়তে ৫২ টাকায় গিয়ে ঠেকেছে।

খুচরা পর্যায়ে চালের দামে দিশেহারা হয়ে পড়ছেন সব শ্রেণি-পেশার মানুষ। বর্তমানে খোলা মিনিকেট ও নাজিরশাইল চাল বিক্রি হচ্ছে ৬৬ থেকে ৭০ টাকা কেজি। মাঝারি মানের পইজাম ও লতা চালের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫৬ থেকে ৬০ টাকা। আর গরিবের মোটা চালের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৫২ টাকা।

এদিকে চালের অস্বাভাবিক দাম বাড়ায় গত জানুয়ারি মাসে চাল আমদানির শুল্ক ৬২ দশমিক ৫০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১০ শতাংশে নামিয়ে আনে সরকার। তখনও রাজধানীর বাজারগুলোতে খুচরা পর্যায়ে নাজিরশাইল ও মিনিকেট চালের কেজি বিক্রি হচ্ছিল ৬০ থেকে ৬৪ টাকা। মাঝারি মানের পাইজাম ও লতা চালের কেজি ছিল ৫২ থেকে ৫৪ টাকা। আর মোটা চাল ছিল ৫০ টাকার নিচে।

চালের বাজারে কোনো নজরদারি নেই উল্লেখ করে একাধক ক্রেতা জানান, যেভাবে দফায় দফায় দাম বাড়ছে তাতে করে দিনে একবেলা ভাত খেতে হবে। অস্বাভাবিক হারে যে চালে দাম বাড়ছে এ নিয়ে কারো কোনো মাথাব্যথা নেই। চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করেন ভোক্তারা।


আরও পড়ুনঃ খুলনায় প্রথমবারের মতো বাণিজ্যিকভাবে ত্বীন ফল চাষ


কৃষি প্রতিবেদন / আধুনিক কৃষি খামার







Credit: Source link