ঢাকারবিবার , ২৩ মে ২০২১
  • অন্যান্য

রংপুরে বেড়েছে সবজি ও দেশি মাছের দাম

admin
মে ২৩, ২০২১ ৭:৫৯ পূর্বাহ্ন । ১১৪ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি





ফজলুর রহমানঃ রংপুরে কাঁচা বাজারগুলোতে শাক-সবজির দাম রমজানে বাড়লেও রোজার পরে তা আর কমেনি। বরং কিছু পণ্যের দাম উল্টো আরো বেড়েই চলছে

শনিবার(২২ মে) সকাল ১১.০০ টায় রংপুর নগরীর সিটি বাজারে ঘুরে দেখা গেছে, বেগুন এক সপ্তাহের ব্যবধানে ১৫ টাকা বেড়ে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। করলা কেজিতে ১০ টাকা বেড়ে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর পটল ৫ টাকা, কাঁকরোল ১৫ টাকা ও কচুর লতি কেজিতে ৫ টাকা করে বেড়েছে। রসুন-পেঁয়াজের দাম কেজিতে ১৫-২০ টাকা বেড়েছে। এছাড়া ঢেড়স কচুর লতিসহ বেশ কিছু পণ্যের দামও বেড়েছে।

বাজারে সবজি কিনতে আসা দিন মজুর সবুজ মিয়া বলেন, ঈদের পরে হঠাৎ করে তরকারির দাম বেড়েছে। আমরা দিন আনি দিন খাই। তার উপর এই ভরা মৌসুমেও যদি তরকারির দাম বেশি থাকে তাহলে আমরা গরিব মানুষ কিভাবে অল্প আয় দিয়ে বাজার করবো।

সবজি ব্যবসায়ী আজমল জানান, ঈদের আগে কয়েক দিনের বৃষ্টি আর পরবর্তীতে খরা হওয়ার কারণে কৃষকের অনেক সবজি ক্ষেতে ক্ষতির মুখে পড়েছে। এছাড়াও করোনার কারণে দূর থেকে এসব সবজি ছোট ছোট পরিবহনে করে আনতেও ভাড়া নিচ্ছে বেশি। তাই কিছু কিছু সবজির দাম একটু বাড়তি।

এদিকে মাছের বাজারে সব দেশি মাছসহ সব প্রকারের মাছেই ৩০ থেকে ৭০ টাকা দাম বাড়তি। দেশি শিং মাছের কেজি ৪০০-৫০০ টাকা, মলা মাছের কেজি ৫০০-৫৫০ টাকা দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে।

মাছের দাম প্রকারভেদে বাড়লেও গরু মাংসের দাম ৫৫০ ও খাসির মাংস ৭৫০-৮০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। মাছ বিক্রেতা বাবু জানান, ঈদের পর দেশি মাছের চাহিদা বেশি কিন্তু সেই অনুপাতে আনতে না পারায় দাম কিছুটা বাড়ছে।







Credit: Source link