ঢাকাবুধবার , ২৬ মে ২০২১
  • অন্যান্য

রংপুরে হাঁড়িভাঙা আমের ফলন বিপর্যয়ের আশঙ্কা চাষিদের

admin
মে ২৬, ২০২১ ৩:২৮ পূর্বাহ্ন । ৯৩ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি





ফজলুর রহমান, রংপুরঃ  চলতি বছরে অনাবৃষ্টি-অতিরিক্ত তাপমাত্রা এবং গুটি আসার আগে ঝরে যাওয়ার কারণে সু-স্বাদু হাড়িভাঙ্গা আমের ফলন গতবারের তুলনায় ভালো হয়নি। এছাড়াও ফলন বিপর্যয়ের আশংকা করছেন আম চাষিরা। নির্বিঘ্নে আম বাজারজাত করতে দুর্যোগকালীন সময়ে দুশ্চিন্তা এড়াতে সরকারের কৃষি সম্প্রসারণ, কৃষি বিপণন ও পরিবহন এবং আইনশৃংখলা বাহিনীর সমন্বয়ে যৌথ ব্যবস্থাপনা গড়ে তোলার দাবি জানান আম ব্যবসায়ীরা।

স্বাদে অতুলনীয় হাঁড়িভাঙা আম বদলে দিয়েছে রংপুরের পদাগঞ্জের অর্থনীতি। সুমিষ্ট ছোট আটি আর আশবিহীন রসালো ও বিষমুক্ত এই হাঁড়িভাঙ্গা আমের চাহিদা রয়েছে সবার কাছে। কয়েক বছর থেকে ফলন ভালো হওয়ার কারণে রংপুর এর পাশাপাশি উপজেলাগুলোতে এর চাষ বৃদ্ধি পেয়েছে।

এদিকে জানা যায়, হাঁড়িভাঙা আমের গোড়াপত্তন করেছিলেন নফল উদ্দিন পাইকার নামের এক বৃক্ষবিলাসী মানুষ। ৪৫ বছর আগে মারা যান তিনি। এরপর উপজেলার আখিরার হাটের আব্দুস সালাম সরকারের মাধ‌্যমে রংপুর অঞ্চল পেরিয়ে গোটা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই আম। অন্যান্য ফসলের চেয়ে বেশি লাভের আশায় জেলার উঁচু-নিচু ‍ও পরিত্যক্ত জমিতে প্রতিবছরে বাড়ছে আমের চাষ। পরিধি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই অঞ্চলে একটা হিমাগার স্থাপন করার দাবিও জানান হাড়িভাঙ্গা আমের সাথে পরিচিত মিঠাপুকুরের সফল এই চাষি।

জুনের ২০ তারিখের পর বাগান মালিকরা গাছ থেকে হাড়িভাঙ্গা আম পেরে বাজারজাত করবেন। কৃষি বিভাগের তথ্যমতে এবার জেলার মিঠাপুকুর উপজেলার আখিরাহাট, পদগঞ্জ, মাঠেরহাট, বদরগঞ্জের গোপালপুরসহ বেশি কিছু এলাকাতে প্রায় ৩ হাজার ৩০০ হেক্টর জমিতে সব জাতের আমের আবাদ হয়েছে। এর মধ্যে ১ হাজার ৮৬৫ হেক্টর জমিতে রয়েছে হাড়িভাঙ্গা আম। জেলায় উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয় ৪৩ হাজার ৮৩৫ মেট্রিক টন। এর মধ্যে হাঁড়িভাঙ্গা আমের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২৭ হাজার ৯২৫ মেট্রিক টন আম।







Credit: Source link