ঢাকাশুক্রবার , ৩ ডিসেম্বর ২০২১
  • অন্যান্য

রাজশাহীতে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে চিনা শাকের চাষ, দামে খুশি চাষিরা!

admin
ডিসেম্বর ৩, ২০২১ ৫:২৫ পূর্বাহ্ন । ৮১ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি





রাজশাহীর পবা উপজেলায় দিন দিন জনপ্রিয়তা পাচ্ছে চিনা কিংবা বাটি শাকের চাষাবাদ। অল্প খরচ, রোগবালাই ও পোকার আক্রমণ কম হবার পাশাপাশি কম পরিশ্রমে অধিক লাভ বেশি হওয়ায় বাটি শাক চাষে ঝুঁকছেন এই অঞ্চলের প্রান্তিক চাষিরা।

পবা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রমতে, চলতি মৌসুমে এ জেলায় শীতকালীন বাটি শাক চাষ হয়েছে প্রায় ৭ হেক্টর জমিতে। আগামী বছর বাটি শাক চাষ বেশি হবে বলেও আশা করছে কৃষি অধিদপ্তর।

বাটি শাক চাষে পোকামাকড় ও রোগবালাই এর আক্রমণ কম হয় বলে জানিয়েছেন একাধিক চাষি। তারা বলছেন, গাছ একবারে না তুলে গাছের পাতা ধাপে ধাপে তুলে খেলে অনেক দিন ধরে ফসল পাওয়া যায়। বীজ বপনের দুই মাসের মধ্যে ফসল তোলা যায়। প্রতি শতকে ৭০ থেকে ৮০ কেজি শাক পাওয়া যায়। বাজারে এখন প্রতি কেজি বাটিশাক ১৫-২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে বলেও তারা জানান।

পবার সবসার গ্রামের সবজি চাষি সাইদুর রহমান জানান, পবায় বাটি শাকের ব্যাপক চাহিদা। বাজারে বাটি শাকের দাম বেশি হওয়ায় আমি এ বছর ২ বিঘা জমিতে চাষ করেছি। গতবছরে ১ বিঘা জমিতে চাষ করে প্রায় ৭০ থেকে ৮০ মণ ফলন পেয়েছিলাম। বাটি শাক চাষে খরচ কম, লাভ বেশি। তাই দিন দিন পবায় এর চাষ বাড়ছে বলেও জানান তিনি।

পবা উপজেলা কৃষি অফিসার মো. শফিকুল ইসলাম জানান, শীতকালীন শাক-সবজি হিসেবে বাটি শাকের বেশ কদর আছে। স্থানীয় বাজারে ভাল দামও পাচ্ছেন চাষিরা। নতুন উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন পরামর্শমূলক সেবা প্রদান অব্যাহত রয়েছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।







Credit: Source link