ঢাকাশনিবার , ৩১ জুলাই ২০২১
  • অন্যান্য

লকডাউনে পেয়ারা নিয়ে বিপাকে দক্ষিণাঞ্চলের চাষিরা

admin
জুলাই ৩১, ২০২১ ৩:৫১ পূর্বাহ্ন । ৪৯ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি





করোনা সংক্রমণ রোধে দেশে চলছে কঠোর লকডাউন। এমতাবস্থায় নিজেদের উৎপাদিত পেয়ারা নিয়ে বিপাকে পড়েছেন দক্ষিণাঞ্চলের চাষিরা। চলতি মৌসুমে বৈরি আবহাওয়া ও করোনাভাইরাসের কারণে ক্রেতা না থাকায় লোকসান গুণতে হচ্ছে পেয়ারা চাষি ও ব্যবসায়ীদের।

কৃষি বিভাগ সূত্র জানায়, বরিশাল, ঝালকাঠি এবং পিরোজপুর এই তিন জেলার ৫৫ গ্রামে মোট ১৯৩২ হেক্টর জমিতে বাণিজ্যিকভাবে পেয়ারা চাষ করা করা হয়। এসব গ্রামের হাজারো মানুষের জীবিকার একমাত্র উৎস পেয়ারা। চলতি মৌসুমে ফলন কম ও করোনার প্রভাবে এবার পেয়ারার চাহিদা কম, দামও পাচ্ছেন না চাষি-ব্যবসায়ীরা বলে জানিয়েছেন কৃষি বিভাগ।

পেয়ারা চাষী নিশিথ হালদার শানু বলেন, এ বছর বাগানে তেমন ফলন হয়নি। বাগানের যথাযথ পরিচর্যা করতে না পারায় ছিটপড়া রোগে আক্রান্ত হয়েছে বাগান। আগে যে পেয়ারা প্রতি মণ ৮০০-১০০০ টাকায় বিক্রি হতো, এবার তা বিক্রি হচ্ছে ৪০০-৫০০ টাকায়।

পেয়ারা চাষি সিরাজি বলেন, এবার পেয়ার খুব একটা ভাল ফলন হয়নি। অন্যান্য বারের তুলনায় এবার পেয়ারার ফলন ৪০ ভাগ কম হয়েছে। এছাড়াও লকডাউন চলায় বাজারে পেয়ারার দাম অর্ধেকে নেমে এসেছে। যারফলে লোকসান গুনতে হচ্ছে

ঝালকাঠি জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ফজলুল হক জানান, করোনার পাশাপাশি এ বছর কাঙ্ক্ষিত উৎপাদন হয়নি ফলে চাষি ও ব্যবসায়ীরা ভালো দাম পাচ্ছেন না। পেয়ারা চাষিদের ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে বিনামূল্যে কৃষি উপকরণ, প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও সহজ শর্তে ঋণ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে বলেও তিনি জানান ।







Credit: Source link