ঢাকাশুক্রবার , ২৩ জুলাই ২০২১
  • অন্যান্য

সিন্ডিকেটের কবলে নওগাঁর চামড়া শিল্প, হতাশ ব্যবসায়ীরা

admin
জুলাই ২৩, ২০২১ ৮:১৩ পূর্বাহ্ন । ৭৫ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি


নওগাঁ জেলার সর্বত্রই নামমাত্র দামে বিক্রি হচ্ছে পশুর চামড়া। এতে করে হতাশ হয়ে পড়ছেন মৌসুমী ব্যবসায়ীরা। গত বছর লোকসান গুনলেও এ বছরও সিন্ডিকেটের কারণে লোকসান গুনছেন বলে জানিয়েছেন একাধিক ব্যবসায়ী।

চলতি বছর গরু ও ছাগলের চামড়ার দাম সরকারিভাবে ঢাকায় লবণযুক্ত কোরবানির গরুর লবণযুক্ত চামড়া প্রতি বর্গফুট ঢাকাতে ৪০-৪৫ টাকা ও খাসির চামড়া সারাদেশে ১৫-১৭ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে তবে প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়া ঢাকার বাইরে ৩৩ থেকে ৩৭ টাকা ও বকরীর চামড়া ১২-১৪ টাকা নির্ধারণ করা হলেও মাঠ পর্যায়ে পড়েনি এর কোন প্রভাব। নাম মাত্র দরে বিক্রি হচ্ছে গরু ও ছাগলের চামড়া পাশাপাশি সিন্ডিকেটের কারণে বেশ বিপাকে পড়েছেন এই অঞ্চলের সাধারণ মানুষসহ মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীরা।

সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাসের প্রভাবে অনেকেই কোরবানি দিতে পারেনি। আর এসবের প্রভাব পড়েছে জেলার চামড়া শিল্পে। আল্লাহর উপর ভরসা করে এবার নিজেদের টাকায় কম দামে চামড়া কিনছেন ব্যবসায়ীরা।

আমইতাড়া বাজারে কোরবানি পশুর চামড়া কিনতে আসা ব্যবসায়ী জগদীশ বলেন, কাঁচা চামড়ার চাহিদা অনেক কম। খুব ভালো হলে গরুর চামড়া একশ থেকে তিনশ টাকায় কিনছি। আর ভেড়া, ছাগলের চামড়া বিশ থেকে তিরিশ টাকায় বেচাকেনা চলছে।।

চামড়া ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম বলেন আমাদের কাছে এখনো পর্যাপ্ত পরিমাণ চামড়া মজুদ আছে। এছঅড়াও চামড়া জাতীয় সম্পদ বলেই সরকারের বেধে দেওয়া মূল্যের একটু বেশি দামে চামড়া কিনছি। ট্যানারী মালিকরা যদি একটু লাভ দিয়ে চামড়া নেয় সেই আশাতেও চামড়া কিনছি।

বাজারে গরুর চামড়া বিক্রি করতে আসা ফারুক বলেন, ৮০ হাজার টাকার গরুর চামড়া দুইশ টাকায় বিক্রি করেছি। অথচ কয়েক বছর আগে এ ধরনের চামড়া বাজারে চার থেকে পাঁচ হাজার টাকায় কেনাবেচা হয়েছে। চামড়া ব্যবসাও এখন সিন্ডিকেটের দখলে চলে গেছে।

অপর বিক্রেতা আব্দুর রহমান বলেন, সিন্ডিকেটরা গরিবের পেটে লাথি মারছে অথচ দেখার কেউ নেই। আমরা এতগুলো চামড়া নিয়ে এখন কি করবো

Credit: Source link