ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৯ অগাস্ট ২০২১
  • অন্যান্য

হাঁসের প্লেগ ও কলেরা রোগ প্রতিরোধে করণীয়

admin
অগাস্ট ১৯, ২০২১ ৮:২৩ পূর্বাহ্ন । ৪১ জন
Link Copied!
agrilive24.com অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন আমাদের ফেসবুক পেজটি


হাঁসের প্লেগ ও কলেরা রোগ প্রতিরোধে করণীয় যেসব কাজ রয়েছে সেগুলো খামারিরা সঠিকভাবে না জানলে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। হাঁসের খামারে লাভবান হওয়ার জন্য রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখা জরুরী। আজকের এ লেখায় চলুন জেনে নিব হাঁসের প্লেগ ও কলেরা রোগ প্রতিরোধে করণীয় সম্পর্কে-

হাঁসের প্লেগ ও কলেরা রোগ প্রতিরোধে করণীয়ঃ


প্লেগ রোগের লক্ষণঃ


  • পালক এলোমেলো হয়ে পড়ে।
  • হাঁস আলো দেখলে ভয় পায়।
  • চোখ ফুলে চোখের পাতা আটকে যায়।
  • হাঁস সাঁতার কাটতে চায় না।
  • পানি পিপাসা বৃদ্ধি পায়। খাদ্য গ্রহণে অনীহা হয়।
  • পা ও পাখা অবশ হয়। পাখা ঝুলে পড়ে।
  • নাক দিয়ে তরল পদার্থ বের হয়।
  • সবুজ ও হলুদ রঙের পাতলা মলত্যাগ করে।
  • ঠোঁট নীল বর্ণ হয়।
  • ঘাড় মাথা বাঁকা করে উপরের দিকে তাকিয়ে থাকে। কাঁপুনি হয়।
  • খুঁড়িয়ে হাঁটে।
  • ডিম পাড়া হাঁস ডিম পাড়া কমিয়ে দেয়।
  • হাঁস হঠাৎ মারা যায়।

রোগের প্রতিরোধ ও প্রতিকারঃ


১। সবকিছু জীবাণুমুক্ত রাখা।

২। আক্রান্ত- হাঁস অন্যত্র সরিয়ে ফেলা।

৩। মৃত হাঁস মাটিতে পুঁতে ফেলা।

৪।   জৈব নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা।

৫। টিকা দেয়া। ১৫-২০ দিন বয়সের বাচ্চাকে প্রথমবার এবং পরে এক মাস বয়সে এবং ৬ মাস পরপর প্রতিটি হাঁসের রানের বা বুকের মাংসে ১ মি.লি. করে ইনজেকশন দিতে হয়।

হাঁসের কলেরা রোগের লক্ষণঃ


  • ক্ষুদা মন্দা হয়। দেহ দুর্বল হয়।
  • আক্রান্ত- হাঁস সবুজ বা হলুদ বর্ণের পাতলা মলত্যাগ করে।
  • ডিম উৎপাদন কমে যায়।
  • মুখমণ্ডল, ঝুঁটি, গলকম্বল ও কানের লতি নীলাভ হয়।
  • নাক, মুখ ও চোখ দিয়ে তরল পদার্থ বের হয়।
  • পালক উসকো খুসকো হয়। পালক ঝুলে পড়ে।
  • মুরগি হঠাৎ মারা যায়।
  • মাথা ও হাঁটু ফুলে যায়।
  • চোখের পাতা ফুলে যায়।

রোগের প্রতিরোধ ও প্রতিকারঃ


১।   মৃত হাঁস মাটিতে পুঁতে ফেলা।

২।  আক্রান্ত- হাঁস অন্যত্র সরিয়ে ফেলা।

৩। জৈব নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা।

৪। সবকিছু জীবাণুমুক্ত রাখা।

৫। এ রোগের টিকা প্রতিটি হাঁসের ২ সপ্তাহ বয়সে রানের মাংসে ১ সিসি করে ইনজেকশন দিতে হয়।

৬। টেট্রাসাইকিন গ্রুপের ওষুধ পানির সাথে মিশিয়ে খাওয়াতে হয়।


আরও পড়ুনঃ বাণিজ্যিকভাবে মুরগি পালনে জন্য স্থান নির্বাচনে বিবেচ্য


লেখকঃ সহকারী অধ্যাপক, শহীদ জিয়া মহিলা কলেজ, ভূয়াপুর, টাঙ্গাইল।


পোলট্রি প্রতিবেদন / আধুনিক কৃষি খামার

Credit: Source link